শিল্পবিপ্লব ও ক্রমবর্ধমান শিল্প উন্নয়ন কারিগরি শিক্ষাকে অপরিহার্য করে তুলেছে। কারিগরি শিক্ষা ব্যবস্থা আমাদের শ্রমিক ও কর্মজীবী শ্রেণীকে পৌছে দিয়েছে একটি সম্মানজনক অবস্থানে; নিশ্চিত করেছে কর্মের ব্যবস্থা এবং কোন ক্রমেই একজন কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত লোককে বেকার থাকতে হয় না। বাংলাদেশের মতো একটি দরিদ্র্য ও উন্নয়নশীল দেশ শুধুমাত্র কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে প্রকৃত দক্ষ জনবল তৈরীর মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে নিয়ে যেতে পারে এক অনন্য উচ্চতায়।

সেন্টার ফর টেকনোলজি ট্রান্সফার (সিটিটি) দক্ষ ও যোগ্য প্রকৌশলী তৈরী করে আমাদের দেশের আর্থ সামাজিক ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে অবদান রাখতে সক্ষম হবে। যুবসমাজকে প্রকৃত অর্থে ডেভেলপমেন্ট করতে এবং চাকুরীর বাজারের জন্য প্রস্তুত করতে সি.টি.টি বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলে আমি আশা করছি। ভবিষ্যত প্রজন্মের প্রকৌশলী তৈরী করতে সি.টি.টি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এই কার্যক্রমে আমি সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

ধন্যবদান্তে

মোঃ জায়দুল ইসলাম
অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত)
সেন্টার ফর টেকনোলজি ট্রান্সফার (সিটিটি)